বাংলালিংক সিম বন্ধ করার নিয়ম | Banglalink Sim Bondho Korar Niyom ki

বাংলালিংক সিম বন্ধ করার নিয়ম | Banglalink Sim Bondho Korar Niyom ki . আজকে এই বিষয়টি আমি আপনাদের সাথে শেয়ার করব যাতে আপনাদের প্রয়োজনে আপনারা বাংলা

 বাংলালিংক সিম বন্ধ করার নিয়ম : বাংলালিংক সিম বাংলাদেশের অন্যতম একটি মোবাইল সিম অপারেটর কোম্পানিআপনি যদি বাংলালিংক সিমের একজন গ্রাহক হয়ে থাকেন এবং আপনি চাচ্ছেন না যে আপনার বাংলালিংক সিম টি আর সচল রাখতে অথবা আপনি অন্য একটি নাম্বার কিনবেন বাংলালিংকের । এজন্য চাচ্ছেন যে বর্তমান যে সিমটি রয়েছে ঐ সিমটি বন্ধ করতে এখন কিভাবে বন্ধ করবেন। কথা বলব আজকে বাংলালিংক সিম বন্ধ করার নিয়ম নিয়ে। 

অন্য পোষ্ট: Oppo আসল মোবাইল চেনার উপায়

বাংলালিংক সিম বন্ধ করার নিয়ম | Banglalink Sim Bondho Korar Niyom ki



অন্য পোষ্ট: 016 কোন সিম | 016 কি নাম্বার | 016 which operator in Bangladesh


দুটি উপায় অবলম্বন করে আপনি বাংলালিংক সিম বন্ধ করতে পারেন। পদ্ধতি দুটি আমি নিচে তুলে ধরার চেষ্টা করছি এরপর যদি আপনাদের বুঝতে সমস্যা হয় তাহলে অবশ্যই কমেন্ট করে জানিয়ে দিবেন।


১)  সাময়িকভাবে


২) স্থায়ীভাবে


উপরের দুটি পদ্ধতিতেই আপনি বাংলালিংক সিম নাম্বার বন্ধ করতে পারবেন। তবে, সাময়িক ও স্থায়িভাবে বাংলালিংক সিম বন্ধ করার জন্য আপনাকে আলাদা আলাদা নিয়ম অনুসরণ করতে হবে। 


আমি আপনাদেরকে বাংলালিংক সিম বন্ধ করার দুটি উপায়ে বিস্তারিত ভাবে বলে দেওয়ার চেষ্টা করব। এর পরও যদি আপনার কোনো রকম মনে হয় যে কিভাবে বন্ধ করবেন তাহলে অবশ্যই আপনি বাংলালিংক কাস্টমার কেয়ারে ফোন দিয়ে কথা বলে ভালভাবে জেনে নিবেন।  তাহলে চলুন জেনে নেওয়া যাক, বাংলালিংক সিম বন্ধ করার নিয়ম। 



অন্য পোষ্ট: টেলিটক কাস্টমার কেয়ার কবে বন্ধ থাকে

সাময়িক ভাবে বাংলালিংক সিম বন্ধ করার নিয়ম

আপনি যদি সাময়িকভাবে বাংলালিংক সিম বন্ধ করতে চান তাহলে আপনাকে খুব বেশি কষ্ট করতে হবে না। প্রথমত আপনাকে ফোন করতে হবে বাংলালিংক এর হেল্পলাইন নাম্বার 121 এ। আপনার উক্ত সমস্যাটি সার্ভিস ম্যানেজারকে জানান এবং আপনার বাংলালিংক সিম টি সাময়িকভাবে বন্ধ করতে চান সেটি নিশ্চিত করুন। 


বাংলালিংক সিম বন্ধ করতে মালিকানা যাচাই করার প্রয়োজন হয়ে থাকে। শুধুমাত্র বাংলালিংক সিম নয় যেকোনো অপারেটর এর সিম বন্ধ করার জন্য মালিকানা যাচাই করা হয়ে থাকে। তাই, কাস্টমার কেয়ার ম্যানেজার সিমের মালিকানা যাচাই করতে আপনার কাছে কিছু তথ্য চাইবে। তবে তেমন কিছু চাইবে না। শুধুমাত্র যার এনআইডি (NID) দিয়ে সিমটি রেজিস্ট্রেশন করা, তাকে ফোনে কথা বলতে হবে এবং তার এনআইডি সংক্রান্ত কিছু তথ্য জানতে চাইবে। যেমন: এনআইডি কার্ড নাম্বার, জন্ম তারিখ ইত্যাদি। 


সকল তথ্য সঠিকভাবে দেওয়ার পর, বাংলালিংক (Banglalink) কর্তৃপক্ষ আপনার সিমটি সাময়িকভাবে বন্ধ করে দেবে। তবে আপনি চাইলে যেকোন সময় আবার সিমটি চালু করতে পারবেন।  এজন্য আপনাকে পুনরায় সার্ভিস সেন্টারে কল করে কাস্টমার ম্যানেজারের কাছে জানাতে  হবে। 


অন্য পোষ্ট: ২০২৭ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপ কোথায় হবে | Cricket World Cup 2023


বাংলালিংক সিম স্থায়ী ভাবে বন্ধ করার নিয়ম

আপনি যদি বাংলালিনক সিম এ স্থায়ীভাবে বন্ধ করতে চান আপনি আর কখনোই ওই নাম্বার টি ব্যবহার করবেন না তাহলে আপনাকে নিচের এই পদ্ধতি অনুসরণ করতে হবে। বাংলালিংক সিম স্থায়ীভাবে বন্ধ করার জন্য আপনার নিকটস্থ কাস্টমার সার্ভিস সেন্টারে যেতে হবে।  সাময়িকভাবে বাংলালিংক সিম বন্ধ করার মত হেল্পলাইনে ফোন করে স্থায়ীভাবে বন্ধ করতে পারবেন না। এর জন্য আপনাকে প্রয়োজনীয় তথ্য সাথে নিয়ে আপনার নিকটস্থ যে কোন বাংলালিংক কাস্টমার সার্ভিস সেন্টারে গিয়ে বিষয়টি জানাতে হবে। 


আপনার বাংলালিংক সিমটি যেই এনআইডি (NID) কার্ড দ্বারা রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছে সেই এনআইডি কার্ড সঙ্গে নিয়ে যেতে হবে এবং এনআইডি কার্ডের মালিককেও সঙ্গে নিয়ে যেতে হবে।  তবে সেটি যদি হয় আপনার নিজের নামে তাহলে তো কোনো সমস্যাই নেই,  আপনি গেলে হবে। 


কাস্টমার কেয়ার  ম্যানেজার আপনার নিকট সিমের মালিকের  এনআইডি কার্ড  চাইবে।   বায়োমেট্রিক রেজিস্ট্রেশন অনুযায়ী আপনার বাংলালিংক সিমের মালিক যার এনআইডি কার্ড দিয়ে সিমটি রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছে। এছাড়াও যার নামে সিমটি রেজিস্ট্রেশন তার ফিঙ্গারপ্রিন্ট প্রয়োজন হবে। তাই অবশ্যই এই বিসয়গুলো লক্ষ্য রাখবেন যখন বাংলালিংক সিম বন্ধ করার জন্য কাস্টমার সার্ভিস সেন্টারে যাবেন। 


বাংলালিংক সিম বন্ধ করার নিয়ম গুলোর মধ্যে আরেকটি বিষয় জানিয়ে রাখা প্রয়োজন। আপনি একদিনে সর্বোচ্চ একটি বাংলালিংক সিম স্থায়ীভাবে বন্ধ করতে পারবেন। আপনি যদি আপনার একাধিক বাংলালিংক সিম বন্ধ করতে চান,  আপনাকে 24 ঘন্টা পর  করতে হবে। একদিনে অর্থাৎ 24 ঘন্টার ভিতরে একটি সিম এর বেশি বা একাধিক সিম একসাথে বন্ধ করতে পারবেন না।


আশা করি আজকের এই পোস্ট থেকে আপনি বুঝতে পেরেছেন যে কিভাবে বাংলালিংক সিম বন্ধ কর বন্ধ করতে হয় । এর পরও যদি আপনার কোন রকম সমস্যা মনে হয় তাহলে আপনি বলবো সর্বপ্রথম আপনি বাংলালিংক কাস্টমার কেয়ার নাম্বার 121 এ ফোন দেন অথবা আপনি সরাসরি আপনার নিকটস্থ কোনো বাংলালিংক কাস্টমার কেয়ারে চলে যান । সেখানে গিয়ে আপনি সম্পূর্ণ কথা তাদেরকে বুঝিয়ে বলুন যে কী কারণে আপনি বাংলালিংক সিম বন্ধ করতে চাচ্ছেন তাহলে তারাই  সমস্যাটির সমাধান করে দিবে।

LikeYourComment